বড় খবরঃপাকিস্তানি সেনাই পুলওয়ামায় জঙ্গি হামলা করিয়েছে।পর্দা ফাঁস করলো পাক মিডিয়া

পাকিস্থানের মদতপুষ্ট জঙ্গি গোষ্ঠীর জৈশ এ মোহম্মদ পুলওয়ামাতে সেনাদের উপরে এই বর্বরোচিত আক্রমণ করেছে।ঘটনার দায় স্বীকার করে নেয় তারা।এই ঘটনার পরিপ্রেক্ষিতে পাকিস্তান সরকার জানায় এই ঘটনার সাথে তাদের কোনো সম্পর্ক নেই, শুধু শুধু তাদের নাম নেওয়া হচ্ছে।কিন্তু পাক মিডিয়াই ইমরান সরকারের পর্দাফাঁস করে।

পাকিস্থানের বেশীরভাগ মিডিয়া স্বীকার করে যে পাক সরকার ও সেনার পালতু কুত্তা হল জৈশ এ মোহম্মদ।তারা পুলওয়ামাতে এই জঙ্গি আক্রমন করে।একদল পাক সুরক্ষা বিশেষজ্ঞরা জানিয়েছে পাকিস্থান তরফে যে অ্যাকশন নিয়েছে ; ভারতের তরফে এবার এর প্রতিক্রিয়া দেখানো হবে।

‘NU4U’ আর ’92’ নামের পাক টিভি পর্দায় এক আলোচনা সভায় বিশেষজ্ঞরা জানিয়েছে ভারতকে ক্ষতি করে পাকিস্থান এভাবে কখনো লাভজনক হতে পারবে না।এই ঘটনার চরম মূল্য পাকিস্থানকে শোধ করতে হবে।

ওনার বলেছেন,ভারতীয় সিআরপিএফ এর জওয়ানদের উপর জৈশ এ মোহম্মদ পাক মদতে যে হামলা চালিয়েছে তার যথাযথ জবাব পাবে পাকিস্থান।ভারতীয় ক্ষমতায় রয়েছে ভারতীয় জনতা পার্টি আর প্রধানমন্ত্রী পদে রয়েছেন নরেন্দ্র মোদী,এটা পাকিস্থানকে বোঝা উচিত ছিলো।এই ঘটনার মোক্ষম জবাব দেবে ভারতীয় সরকার।এটা মনমোহন সিং এর দুর্বল সরকার নয় যে এই ঘটনার পর শুধু ভারত-পাক ক্রিকেট খেলা বন্ধ থাকবে।ভারত-পাক ক্রিকেট তো এখন বন্ধ আর তার সাথেই কোনো অনুষ্ঠানে সীমান্তে মিষ্টি আদান প্রদান ও বন্ধ হয়ে গেছে।

ভারতে পাক পক্ষ থেকে ২৬/১১ হামলায় সেই সময়কার সরকার নিশ্চুপ থাকলেও ; উরি হামলার পরে মোদী সরকার চুপ থাকেনি তার পরিণতি ‘সার্জিক্যাল স্ট্রাইক’।এই ঘটনা ভারত সরকারকে তাতিয়ে দিয়েছে বলে মনে করছে পাক বিশেষজ্ঞগন।

Samar Halder: