প্রযুক্তিগত উন্নতির পাশাপাশি যৌন পেশাও ইদানীং ইন্টারনেট নির্ভর হয়ে পড়েছে। দেশ-বিদেশে সর্বত্রই ‘এসকর্ট সার্ভিস’ খুব প্রচলিত একটি শব্দ। এটি এমন এক ধরনের পরিষেবা, যা নিয়ন্ত্রিত হয় মূলত নেট-এর মাধ্যমেই। নির্দিষ্ট ওয়েবসাইটে গিয়ে নির্দিষ্ট সংস্থার সঙ্গে যোগাযোগ করলেই সংস্থার এজেন্ট পৌঁছে যান পরিষেবা পেতে আগ্রহী গ্রাহকের কাছে। এর পর সময়ভিত্তিক পরিষেবার বিনিময়ে পারিশ্রমিক নিয়ে যান এজেন্টরা। সাধারণত যৌনপল্লির চেয়ে অনেকটাই বেশি টাকা খরচ হয় এই সার্ভিসে।

সম্প্রতি এক সর্বভারতীয় সংবাদমাধ্যমকে দেওয়া সাক্ষাৎকারে এসকর্ট পরিষেবার সঙ্গে যুক্ত এক জার্মান তরুণী তাঁর পেশার ব্যপারে সবিস্তারে জানিয়েছেন।

সেখানেতিনি তাঁর যা পারিশ্রমিক বলেছেন, শুনলে অনেকেরই চোখ কপালে উঠবে।

তরুণী জানান, এসকর্ট সার্ভিসের জন্য প্রতি রাতে কমপক্ষে ৯০০০ পাউণ্ড, অর্থাৎ ভারতীয় মুদ্রায় প্রায় ৮ লক্ষ টাকা নেন তিনি।

‘সিন্ডেরেলা এসকর্ট’ নামে একটি সংস্থার হয়ে তিনি কাজ করেন, সে কথাও জানিয়েছেন।

বলা বাহুল্য, এই পরিষেবার ক্ষেত্রে আমাদের দেশে টাকার অঙ্কটা জার্মানির চেয়ে অনেকটাই কম হবে। কিন্তু তা সত্ত্বেও যে সেটা যৌনপল্লির চাইতে ঢের বেশি, তা আর বলার অপেক্ষা রাখে না।

নাম প্রকাশ না করেই জার্মান তরুণী আরও জানিয়েছেন, কয়েকজন জনপ্রিয় ফুটবলার এবং হলিউডের অভিনেতাও তাঁর কাস্টমার।

একজন হলিউড অভিনেতার সঙ্গে তিনি ডেট করছেন বলেও জানিয়েছেন।

প্রতিবেদন টি ভালো লাগলে শেয়ার করুন আপনার বন্ধুদের সাথে। ধন্যবাদ।।

বাংলায় ভাইরাল ভাইরাল খবর, লেটেস্ট নিউজ, বিনোদনমূলক পোস্ট ও আন্তর্জাতিক খবর পড়তে লাইক করুন আমাদের ফেসবুক পেজ- Bengali Viral News