জানেন কী? প্রাচীনকালে কি ভাবে সেক্সে রাজি করানো হত! জানলে চমকে যাবেন…..

প্রাচীন কালে ঘন্টকচুকি নামে একটি খেলা হত ।এখানে কিছু কিছু লোক বাছাই করা হত ।আর সেই লোক গুলি সকলের সামনে যৌন ক্রিয়াকলাপ করত ।যাতে সকলে মনোরন্নজন হয়ে থাকে । আর লোকে সেগুলি অনেক পছন্দ কর।

প্রাচীন কালে সকলকে সেক্স নিয়ে পড়া জন্যে পাঠান হত যাতে তাদের পরের বিবাহিক জীবন সুখের হয়ে থাকে ।

কথা কার আর সঙ্গীত কার ভগবান নারদ কে সকলেই জানেন ।যে রাজা দক্ষ পরে জন্ম গ্রহন করে ছিলেন ।

প্রাচীন কালে বলা হয়েছে যদি কোনো স্ত্রী যৌন ক্রিয়া করতে ইচ্ছুক হয়ে থাকে তাহলে সে যেকোন একজন পুরুষের সাথে করতে পারে । আর যদি সে একের বেশী পুরুষের সাথে সম্মন্ধ করে তাহলে সেই সমাজ নষ্ট হয়ে যায় ।অর্জুনের দ্বিতীয় স্ত্রী বলেছিলেন একজন স্ত্রী একটি পুরুষের সাথে রাত কাটাতে পারে ।এটা ঠিক আছে ।

এটি কোনো রকম অপরাধ নয় এটি প্রকৃতি দ্বারা তৈরি করা হয়েছে ।ভারতের পুস্তক কামসুত্রে এই যৌন কাজ করমের নিয়ে ভাল করে বলা হয়েছে ।

এখানে সকল প্রকার ভাগের কথা বলা হয়েছে ।যাতে একটি মানুষ সঠিক ভাবে যৌন কাজ কর্ম করতে পারে ।

এটি ছাড়াও অন্য পুস্তকে একটির বেশী স্ত্রীর সাথে সম্মন্ধ করা সঠিক বলা হয়েছ।

প্রাচীন কালে বলা হয়েছে একটি মেয়ে একের বেশী পুরুষের সাথে সমন্ধ করতে পারে যতক্ষন না পর্যন্ত পুত্র প্রাপ্তী না হয় ।

Sanjib: