“মুখ জমে গিয়েছিল”, প্রথম চুমু খেয়ে এ কি বললেন কঙ্গনা রানাওয়াত!

কঙ্গনার বয়স তখন সবে সতেরো-আঠেরো। আর প্রেমে পড়েছিল বছর সাতাশের এক পঞ্জাবি ছেলে’র। তার বেস্টফ্রেন্ড তাঁকে সঙ্গে নিয়ে গিয়েছিল ডেটে। আর সেখানে গিয়েও নাকি কঙ্গনাই প্রেমে পড়ে যায়। কার? সেই বেস্টফ্রেন্ডেরই প্রেমিকের সঙ্গে আসা এক বন্ধুর।

তবে, প্রথমবার কঙ্গনা’কে দেখে তার প্রেমিকের বন্ধু বলেছিল, “এ বাবা! তুমি তো একেবারে বাচ্চা।” তাতে অবশ্য একটুকুও হার মানেননি অভিনেত্রী। সেই ব্যক্তি’কেই বারবার করে মেসেজ করে কঙ্গনা প্রমাণ করতে চাইতো যে সে আর ছোট নেই। বলতেন, “একটা সুযোগ দাও, দেখো আমি ঠিক বড় হয়ে যাব”।

প্রথম চুমু’র অভিজ্ঞতা কেমন ছিল? এ প্রশ্নে, এক সাক্ষাৎকারে অভিনেত্রী জানিয়েছেন যে, একেবারেই নাকি সুখকর ছিল না সে অভিজ্ঞতা। তার বক্তব্য, “মুখ জমে গিয়েছিল। আমার তখনকার বয়ফ্রেন্ড বিরক্ত হয়ে বলেছিল আমায়, ‘আরে মুখটা একটু নাড়াও’। সে এক যাচ্ছেতাই অবস্থা।”

এ তো গেল তাঁর প্রথম প্রেম। আর প্রথম ক্রাশ সম্পর্কেও সম্প্রতি মুখ খুলেছেন অভিনেত্রী। ওই সাক্ষাৎকারেই কঙ্গনা জানিয়েছেন যে, “বয়স তখন ওই পনেরো-ষোলো হবে। বাড়িতে পড়াতে আসতেন এক শিক্ষক। আর তাকে দেখেই হার্টবিট বেড়ে যেত।”

অভিনেত্রী আরও জানিয়েছেন যে, “আমি তখন ক্লাস নাইনে পড়ি। সে সময় সদ্য সলমন খান আর ঐশ্বর্য রাই’য়ের নতুন রোম্যান্টিক গান ‘চাঁদ ছুপা বাদল ম্যায়’ রিলিজ হয়েছিল। লাল ওড়না জড়িয়ে নিজের কল্পনায় ওই গৃহ শিক্ষকেই হিরো ভেবে সেই গান চালিয়ে নাচও করতেন।”

আরও পড়ুনঃ দুবাই মাতাচ্ছে এই বঙ্গ তনয়া, ছবিতে দেখে নিন সাহসিনীকে:

প্রতিবেদনটি ভালো লাগলে শেয়ার করুন আপনার বন্ধুদের সাথে। ধন্যবাদ।।

বাংলায় ভাইরাল ভাইরাল খবর, লেটেস্ট নিউজ, বিনোদনমূলক পোস্ট ও আন্তর্জাতিক খবর পড়তে লাইক করুন আমাদের ফেসবুক পেজ- Bengali Viral News

Jayanta Das: