ত্রিমুখী দাম্পত্য! ত্রিমুখী প্রেমে তিন জন মিলে বিয়ে, এবার তাতেই পূর্ণতা আনতে একি করলেন তাঁরা!

‘আমি, সে আর সখা’ বা ‘পতি, পত্নী আর ও’- যা খুশি বলতে পারেন! তবে, তাতে টেরি আর ব্রিটনি স্ট্রোউপ এবং লিন্ডসে শোয়েফের কিচ্ছু এসে যায় না। আমেরিকা যুক্তরাষ্ট্রের বাসিন্দা এই তিনজন সত্যিই খুঁজে পেয়েছে ‘প্রেম’-এর এক অন্য সংজ্ঞা!

টেরি আর ব্রিটনি সম্পর্কে স্বামী-স্ত্রী ও লিন্ডসে হলো তাঁদের প্রেমিকা। এ এক ত্রিমুখী প্রেম-বন্ধনে দিব্যি তাঁরা বেশ আনন্দেই জীবন কাটাচ্ছেন। এই ত্রয়ী সম্প্রতি জানিয়েছেন যে, এই ত্রিমুখী দাম্পত্য জীবনকে আরও একটু সার্থক করে তুলতে প্রয়োজন সন্তানের। আর তাই তাঁরা ভাবছেন, তিন জন মিলে একটি পরিবার হিসেবেই তাঁদের সন্তান পালনের দায়িত্ব নেবে।

টেরি, ব্রিটনি আর লিন্ডসের বর্তমান বয়স যথাক্রমে ২৬, ২৮ ও ২৭। তাঁরা জানিয়েছেন যে, তাদের এই ত্রিমুখী দাম্পত্য জীবনে ঈর্ষার কোনো স্থানই নেই। তাঁদের পরিবারও নাকি এই সম্পর্ক’কে স্বীকৃতি দিয়েছে। লিন্ডসে জানিয়েছেন, মানুষ এতটাই ভালবাসতে পারে যে, আর তাই তা শুধুমাত্র দুই ব্যক্তির মধ্যেই সীমাবদ্ধ রাখার কোনো মানেই হয় না! আর ঠিক সেই দিক থেকে দেখলে, তাঁদের সন্তানেরা এই ত্রয়ী দাম্পত্য থেকে একটু বেশি ভালবাসা ও যত্ন পাবে বলেই দাবি লিন্ডসের।

টানা ১২ বছর ধরে তাঁরা এই সম্পর্ক’কে লালন করে চলছেন। ব্রিটনি আর লিন্ডসে স্কুল-লাইফ থেকেই নিবিড় বন্ধুত্ব-বন্ধনে আবদ্ধ ছিল। পরে টেরির সঙ্গে ব্রিটনির সম্পর্ক হয়। এর কিছুদিন পরই তাঁরা বিবাহ বন্ধনে আবদ্ধ হন। আর ২০১৬ সাল থেকে লিন্ডসেও তাঁদের সঙ্গেই এক সাথে থাকতে শুরু করে।

সত্যিই যেন, দাম্পত্য জীবনের এক অন্য সংজ্ঞা তাঁরা খুঁজে পেয়েছেন, এখন তাঁরা তাতে দিতে চাইছেন আরও একটু পূর্ণতার স্পর্শ।

প্রতিবেদনটি ভালো লাগলে শেয়ার করুন আপনার বন্ধুদের সাথে। ধন্যবাদ।।
সূত্র১ সূত্র২

Jayanta Das: