“স্ত্রী বাড়িতে নেই, এসে রান্না করে দাও”, মধ্যরাতে ছাত্রীকে ফোন শিক্ষকের!

স্ত্রী ছিলেন না বাড়িতে। আর তাই রান্না করারও কেউ নেই! আর সেই জন্যই মধ্যরাতে গার্লস হস্টেল এর এক আবাসিক কে বাড়িতে ডেকে পাঠান অধ্যাপক। তার খাবার বানিয়ে দেওয়ার জন্য।

ওই অধ্যাপক আবার ওই গার্লস হস্টেলে’র ওয়ার্ডেনও। ইতিমধ্যেই এই ঘটনায় তুমুল হইচই ছড়িয়ে পড়েছে উত্তরাখন্ডের গোবিন্দ বল্লভ পন্থ ইউনিভার্সিটি অফ এগ্রিকালচার এন্ড টেকনোলজি’তে।

অভিযুক্ত ওই অধ্যাপক ও ওই হস্টেল ওয়ার্ডেন প্রথমে ওই ছাত্রী’কে মেসেজ করে তাঁর জন্মদিনের শুভেচ্ছা জানিয়েছিলেন।

তার পরই ওই অধ্যাপক ফোন করে তার বাড়ি’তে আসতে বলেন রান্না করার জন্য।

অধ্যাপকের কাছ থেকে এ ধরণের কথা শুনে সঙ্গে সঙ্গে ওই ছাত্রী ফোন কেটে দিলেও ওই অধ্যাপক বারবার ফোন করেছিলেন বলে অভিযোগ জানিয়েছেন ওই ছাত্রী।

আরও পড়ুন: প্রেমে পড়লেই নাকি ওজন বেড়ে যায়, সম্প্রতি গবেষণা তো এমনই বলছে

এর পরেই ওই ছাত্রী অভিযোগ জানান বিশ্ববিদ্যায়ের উপাচার্য এর কাছে। অভিযোগের প্রমাণ হিসাবে ওই অধ্যাপকের পাঠানো মেসেজটিও দেখিয়েছিলেন ওই ছাত্রী।

তবে, ওই অধ্যাপক’কে ওয়ার্ডেন এর পদ থেকে সরিয়ে দিলেও এখনও পর্যন্ত ওই বিশ্ববিদ্যালয় কর্তৃপক্ষ ওই অধ্যাপকের বিরুদ্ধে কোনো রকম শাস্তিমূলক ব্যবস্থাই নেন নি বলেই অভিযোগ।

আরও পড়ুন: ‘নিজের’ সঙ্গে সম্পর্ক ভাল রাখাটাই আসল, তাই নিজেকে যত্নে রাখতে মেনে চলুন এই নিয়মগুলি:

এ দিকে এই বিষয়টি চারিদিকে ছড়িয়ে পড়তেই অপ্রসন্নতা ও অসন্তোষ ছড়িয়ে পরে সেখানকার ছাত্রীদের মধ্যে।

তখন উত্তরাখন্ডের রাজ্যপাল বেবি রানি মৌর্য বিশ্ববিদ্যালয়ের উপাচার্য’কে এই বিষয়টি দেখতে বলেন। তিনি এই বিষয়ে বিশ্ববিদ্যালয় কর্তৃপক্ষের কাছে রিপোর্টও চেয়েছেন।

প্রতিবেদনটি ভালো লাগলে শেয়ার করুন আপনার বন্ধুদের সাথে। ধন্যবাদ।।

বাংলায় ভাইরাল ভাইরাল খবর, লেটেস্ট নিউজ, বিনোদনমূলক পোস্ট ও আন্তর্জাতিক খবর পড়তে লাইক করুন আমাদের ফেসবুক পেজ- Bengali Viral News

Jayanta Das: