গোপন প্রযুক্তি! এক অভিনব কায়দায় মেয়েদের অশ্লীল ছবি তুলতে গিয়ে বিপাকে এই যুবক!

এক টিভি অভিনেত্রীর অশ্লীল ছবি তুলতে গিয়েই পড়লো বিপাকে তাইল্যান্ডের এই যুবক নাত্থাউট ওংরাত্তানাকর্নচাই।

মেয়েদের অশ্লীল ছবি তোলার জন্য এক অভিনব পদ্ধতি আবিষ্কার করে সে। সে দিব্যি চালিয়ে যাচ্ছিলো তার সেই অভিনব কারবার। কিন্তু, এক অভিনেত্রীর অশ্লীল ছবি তুলতে গিয়েই পড়ল বিপাকে তাইল্যান্ডের এই যুবক নাত্থাউট ওংরাত্তানাকর্নচাই।

সূত্রের খবর অনুসারে, সে নিজের জুতোর মধ্যে মোবাইল ফোন সেট করে মেয়েদের স্কার্টের নিচের অশ্লীল ছবি তুলতো বছর ৪০ এর নাত্থাউট।

রোজকার মতো এ দিনও সে, তাইল্যান্ড-এর গাটসর্ন ভিলেজের একটি শপিং মলের ভিতরে চলাকালীন একটি ফ্যাশন-শো’য়ে সে সেখানকার এক টিভি অভিনেত্রী প্যাট্রিসিয়া টানচানক গুড’কে তাক করেছিল অশ্লীল ছবি তোলার জন্য। কিন্তু, তার ছবি তুলতে গিয়েই নাত্থাউট ধরা পড়ে যায়। এখন গ্রেপ্তার করেছে লোকাল পুলিশ ও তার বিরুদ্ধে ফৌজদারী মামলাও রুজু করা হয়েছে।


পুলিশ সূত্রের খবর, তাকে নানা জেরা করে পুলিশ নাকি জানতে পেরেছে যে, সে তার ব্যক্তিগত যৌনসুখের জন্যই তার জুতোর মধ্যে মোবাইল সেট করে এ রকম অশ্লীল ছবি তুলতো। আর ওই ফ্যাশন শো’য়ে সে সাংবাদিকতার পরিচয় দিয়ে সে ভিতরে প্রবেশ করতো।
সূত্র মারফত আরও জানা যায় যে, ওই ফ্যাশন শো’য়ের বিরতির সময়ে একটি লোক ক্যামেরা হাতে নিয়ে তার কাছে আসে। তার জুতোর মধ্যে এ রকম অদ্ভুত ফুটো দেখে ওই ব্যক্তির সন্দেহ হয়। তারপর অভিনেত্রী প্যাট্রিসিয়া টানচানক গুডের মা সেখানকার নিরাপত্তা কর্মীদের ডাকেন। আর তখনই নাত্থাউটের জুতো পরীক্ষা করলেই আসল ব্যাপারটি সকলের সামনে আসে।

প্রতিবেদনটি ভালো লাগলে শেয়ার করুন আপনার বন্ধুদের সাথে।

সূত্র

Jayanta Das: