লাইফস্টাইল স্বাস্থ্য সংক্রান্ত

পরীক্ষার চাপ কমাতে খান এই ৫টি খাবার, চাপ প্রতিরোধে সাহায্য করবে ও মানসিক কর্মক্ষমতা বৃদ্ধি করবে:

পরীক্ষা! আর এই পরীক্ষার সাথে জোঁকের মতো লেগে রয়েছে যে শব্দটি তা হলো, চাপ। শেষ মুহূর্তের চরম প্রস্তুতির জন্য এখন রাতের পর রাত জাগছে অনেক পড়ুয়াই।

আরও পড়ুন: অনলাইনে কিনলেন ডিম, ফুঁটে বের হলো পুঁচকে পাখি!

আর এতো পড়াশোনার ফলে চাপ আরও বাড়ছে স্বাভাবিক নিয়মেই। আর চাপ বাড়লেই শিকেয় উঠছে খাওয়া দাওয়া! এমনকি অসুস্থ হওয়ার সম্ভাবনাও থাকছে!

আরও পড়ুন: একদিনে ১২৬৩ বার হস্তমৈথুন করে গিনেস বুক অফ ওয়ার্ল্ড রেকর্ডসে নাম তুললেন যুবক

কিন্তু, আসল কথা হলো, এই সময় সুস্থ থাকতে আর, পরীক্ষার চাপ কম রাখতে খাবারের ভূমিকাই সবচেয়ে গুরুত্বপূর্ণ। ঠিকমতো খাবার আর পর্যাপ্ত ঘুম না হলে কিন্তু প্রস্তুতি ভালো হলেও পরীক্ষার দিনে গিয়ে সমস্যায় পড়তে পারে পরীক্ষার্থীরা।

এখানে এ রকমই ৫ টি খাবারের নাম উল্লেখ করা হলো যা আপনাকে পরীক্ষার চাপ প্রতিরোধে সাহায্য করবে অনেকটাই।

আরও পড়ুন: IAS পরীক্ষায় মেয়েটিকে প্রশ্ন করা হল-মেয়েরা জিন্সের প্যান্টের নীচে কি পরে? মেয়েটি যা উত্তর দিল জানলে চমকে যাবেন!!

আজই আপনার ডায়েটে এই খাবারগুলি অন্তর্ভুক্ত করুন আর আপনার মানসিক কর্মক্ষমতা আরও বৃদ্ধি করুন:

১. নাশপাতি

অপরিহার্য খনিজ পদার্থের একটি চমৎকার উৎস হলো নাশপাতি। এই ফলে থাকে প্রচুর ভিটামিন সি। আর বেশি পরিমাণে অ্যান্টিঅক্সিডেন্ট থাকায় চাপ কমিয়ে স্নায়ু শিথিল করতে সাহায্য করে নাশপাতি।

আরও পড়ুন: যে কারনে বৌদিদের প্রতি ছেলেরা আকর্ষিত হয় জেনে নিন-

২. চেরি

ডি.কে পাবলিশিং হাউসে’র বই হিলিং ফুডসে’র মতে, চেরি’তে মেলাটোনিন রয়েছে, যা আমাদের ঘুম বাড়ায়। আপনার দৈনন্দিন খাবারে চেরি যোগ করলে আপনার ঘুমের চক্র পরিচালনা এবং নিয়ন্ত্রণ করতে সুবিধা হবে, আর ঘুমও খুব হবে ভালো।

আরও পড়ুন: পর্ন সিনেমাকে নীল ছবি বা ব্লু ফিল্ম বলে কেন জানেন? জানলে চমকে যাবেন জানুন….

৩. গোজি বেরি


গোজি বেরি’তে প্রয়োজনীয় ভিটামিন ও খনিজ থাকে প্রচুর পরিমাণে। এর ফলে কোলাইনের পরিমাণও বেশি থাকে, যা আমাদের লিভার বীটাইন তৈরি করতে ব্যবহৃত করে। এটি স্নায়ু’কে চাপমুক্তও করে।

৪. দুধ


পুষ্টি বিশেষজ্ঞ রুপালি দত্তের মতে, “দুধ ভিটামিন বি ১২ এর একটি খুব ভাল উৎস, যা আমাদের মস্তিষ্ক ও স্নায়ুতন্ত্র’কে সুস্থ রাখতে সাহায্য করে। এতে ট্রিপটোফ্যান থাকে যা আমাদের ঘুমের চক্র নিয়ন্ত্রণও করে।”

৫. ডিম


ডিমে প্রোটিন, কোলাইন, ভিটামিন বি ও মোনো এবং পলি অসম্পৃক্ত ফ্যাটে সমৃদ্ধ। ডিম স্নায়ুতন্ত্রের স্বাস্থ্য ঠিক রাখার জন্য প্রয়োজনীয় এবং ডিম স্মৃতিশক্তি বৃদ্ধি’তেও সহায়তা করে।

প্রতিবেদনটি ভালো লাগলে শেয়ার করুন আপনার বন্ধুদের সাথে।

আরও পড়ুন: দিশা পাটানির এই হট ফটো শুট গুলো দেখলে রাতে ঘুম আসবে না।


Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *