ভাইরাল সংবাদ

পাড়ারই এক ছোকরা কুকুরের সঙ্গে ‘অবৈধ’ সম্পর্ক! অবশেষে পোষ্যকে তাড়িয়ে দিল মালিক

অপছন্দের পাত্র, তাই মেয়ের জামাই’কে মেনে নেয়নি বাবা, এ রকম ঘটনা তো রোজই ঘটে থাকে। বাংলা সিনেমায় ঝুড়ি ঝুড়ি এ রকম উধারণের গল্প থাকে। তাই বলে সে নিয়মেই বাড়ির পোষ্যকেও বাড়ি থেকে বার করে দেওয়া! হ্যাঁ, অবাক হওয়ার মতো ঘটনা হলেও, এ ঘটনাটি ঘটেছে কেরালার তিরুবনন্তপুরমের চক্কাই এলাকায়।

সম্প্রতি মালিকের অনিচ্ছা সত্ত্বেও সেই পাড়ারই এক ছোকরা কুকুরে’র সঙ্গে ‘অবৈধ’ সম্পর্কে জড়িয়ে পরে এক সুন্দরী পোমেরানিয়ান প্রজাতির কুকুর। যা একদম মেনে নেননি তার মালিক! ফলে, যা হওয়ার তাই হলো!

অবশেষে বাড়ির কর্তা প্রচন্ড রেগে পোষ্য’কেই বাড়ি থেকে বের করে দিল।

আরও পড়ুন: গ্লাসভর্তি নয়, এবার অর্ধেকই পাবেন! জলের অপচয় আটকাতে নতুন আদেশ যোগী সরকারের।

সম্প্রতি কেরালার তিরুবনন্তপুরমের চক্কাই’য়ের ওয়ার্ল্ড মার্কেট রোডের উপরে পাওয়া যায় ওই বছর তিনেকের কুকুরটি। পিপলস ফর অ্যানিমাল এর এক স্বেচ্ছাসেবী ওই সাদা লোমশ কুকুরটিকে উদ্ধার করে নিয়ে যায় নিজেদের ডেরায়। ওই উদ্ধারকারী জানিয়েছেন যে, কুকুরটির গলা থেকে মিলেছে তার মালিকের লেখা একটি নোট। তাতে স্পষ্ট লেখা- “ও খুবই ভাল প্রজাতির কুকুর, ওর স্বভাব খুব ভাল, আবার প্রচুর খাবার লাগে তাও নয়! এমনকি নেই কোনো অসুখবিসুখও। খালি সপ্তাহে পাঁচ দিন অন্তর অন্তর ওকে স্নান করাতে হয়। গত ৩ বছরে ও কাউ’কে কামড়ায়ও নি। শুধুমাত্র দুধ, বিস্কুট আর ডিম খায় ও।” তার পাশাপাশি লেখা আছে, ওকে বাড়ি থেকে বের করে দেওয়ার কারণও! কারণ হিসাবে জানানো হয়েছে যে, ও প্রতিবেশীর এক কুকুরের সঙ্গে ‘অবৈধ’ ভাবে সম্পর্কে জড়িয়ে পড়ার কারণেই এই সিদ্ধান্ত নেন মালিক।

আরও পড়ুন: স্বামীকে খাটের সাথে বেঁধে আগুনে পুড়িয়ে খুন! প্রেমিক-সহ গ্রেফতার স্ত্রী

তবে, এ রকম কাণ্ডে ব্যাপক ক্ষোভ প্রকাশও করেছেন পশুপ্রেমীদের একাংশ। তাদের মতে, প্রজনন ঋতু’র সময় কুকুরদের মধ্যে এমন ব্যবহার অত্যন্ত স্বাভাবিক। যদি কুকুরটির মালিক কুকুরটির প্রজনন-ই আটকাতে চান, তা-হলে কুকুরদের বন্ধ্যত্বকরণের চিকিৎসা করাতে পারতেন তিনি। আর যদি কুকুরের “কুমারীত্ব” রক্ষাই তার মূল উদ্দেশ্য হতো, তাহলে ঘরে আটকে রাখাই উচিত ছিল কুকুরটিকে।

ওই উদ্ধারকারী জানিয়েছেন, সাধারণত অসুস্থ বা আহত কুকুর’দেরই রাস্তায় পান তিনি। এ রকম অদ্ভুত কারণে কুকুর’কে বাড়ি ‌থেকে বের করে দেওয়ার এ ঘটনা বিরল। তবে তিনি আরও জানান যে, কুকুরটি কিন্তু বেশ মিষ্টি স্বভাবের। আর খুব শিগগিরই যে এই কুকুরটিকে কেউ না কেউ দত্তক নিয়ে নেবে, এই বিষয়েও তিনি নিশ্চিত।

সূত্র: আনন্দবাজার
প্রতিবেদনটি ভালো লাগলে শেয়ার করুন আপনার বন্ধুদের সাথে। ধন্যবাদ।।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *