খেলাধুলা

এবার এম এস ধোনির গ্লাভসে ভারতীয় সেনা-চিহ্নে আপত্তি আইসিসির!

সম্প্রতি দক্ষিণ আফ্রিকার বিরুদ্ধে চলতি বিশ্বকাপের প্রথম ম্যাচে ভারতীয় উইকেটকিপার এম এস ধোনি’র গ্লাভসের উপরে দেখা গিয়েছিল ফৌজি চিহ্ন। এবার তা নিয়েও নিজেদের আপত্তির কথা জানাল ক্রিকেট নিয়ামক সংস্থা আইসিসি।

ভারতীয় ক্রিকেট বোর্ড’কে তারা সরাসরি জানিয়ে দিয়েছে যে, এম এস ধোনি যাতে বিশ্বকাপের পরবর্তী ম্যাচগুলিতে তার গ্লাভসে ওই ফৌজি চিহ্ন না রাখে, তার জন্য তাকে অনুরোধও করতে।

সাউদাম্পটনে গত বুধবার দক্ষিণ আফ্রিকা’র বিরুদ্ধে ভারতের ফিল্ডিং’য়ের সময় দেখা গেছে যে, এম এস ধোনির গ্লাভসের উপরে ডানাওয়ালা ছুরি প্রতীক চিহ্ন আছে। যা সেনাকর্মীদের ভাষায় “ফ্লাইং ড্যাগার” বা “বলিদান”।

এটি ভারতীয় সেনা-বাহিনীর প্যারা স্পেশ্যাল ফোর্সের পরিচয়-চিহ্ন। আসলে এম এস ধোনি ভারতীয় সেনা-বাহিনীর প্যারাশুট রেজিমেন্টের সাম্মানিক লেফটেন্যান্ট কর্নেল পদেও আছেন। জানা গিয়েছে, তাই তিনি ভারতীয় সেনার প্রতি শ্রদ্ধা জানাতেই প্রদর্শন করতেই গ্লাভসের উপর ‘বলিদান’ চিহ্ন রেখেছিলেন তিনি।

আইসিসি-র অন্যতম জেনারেল ম্যানেজার ক্লেয়ার ফার্লং বৃহস্পতিবার বলেন, ‘‘ভারতীয় ক্রিকেট বোর্ডকে এ ব্যাপারে অনুরোধ করা হয়েছে ধোনি যাতে পরের ম্যাচগুলোতে ওই সেনা প্রতীক-সহ মাঠে না নামেন।’’

দক্ষিণ আফ্রিকা ইনিংসের ৩৯.৩ ওভারে যুজবেন্দ্র চহালের বলে আন্দাইল ফেহলুকওয়েও-কে স্টাম্প করেন ধোনি। তখনই টিভি ক্যামেরা ধোনিকে  ধরলে দেখা যায়, ভারতীয় উইকেটকিপারের দুই গ্লাভসের উপরেই সাঁটা রয়েছে সেই বলিদান চিহ্ন।

যা ভারতীয় সেনাবাহিনীর প্যারা স্পেশ্যাল কমান্ডোদের ব্যাজ। অতীতে ২০১৫ সালে প্যারা স্পেশ্যাল ফোর্সের সঙ্গে দু’সপ্তাহ ট্রেনিং করেছিলেন ধোনি। সেই সময়ে প্যারাশুট-সহ পাঁচবার ঝাঁপ দিয়েছিলেন বিশ্বকাপজয়ী প্রাক্তন এই ভারত অধিনায়ক।

আইসিসি ধোনির এই সেনা চিহ্ন নিয়ে আপত্তি জানালেও, সোশ্যাল নেটওয়ার্কিং সাইটে ধোনি তুমুল জনসমর্থন পেয়েছেন। একজন লিখেছেন, ‘‘বলিদান চিহ্নে গ্লাভসের উপর রেখে বিশ্বকাপে খেলতে নামায় ধোনিকে স্যালুট ও শ্রদ্ধা।’’ আর একজন লিখেছেন, ‘‘দেশের ও সেনার প্রতি শ্রদ্ধা কতটা, সেটাই বুঝিয়ে দিয়েছে ধোনি।’’

এ দিকে, ভারতীয় উইকেটকিপারের ভূয়সী প্রশংসা করেছেন শোয়েব আখতার। প্রাক্তন পাক পেসার বলেছেন, ‘‘ক্রিকেট সম্পর্কিত যে কোনও বিষয়ে ধোনির মস্তিষ্ক কিন্তু কম্পিউটারের থেকেও  অনেক দ্রুত চলে।’’

প্রতিদেবনটি ভালো লাগলে শেয়ার করুন আপনার বন্ধুদের সাথে।। ধন্যবাদ ।।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *