এখন আপনি ট্রেনের টিকিটে স্টেশন ও যাত্রীর নামও বদলানো পারবেন! জেনে নিন কিভাবে:

বিজ্ঞাপন

রেলে টিকিট কাটার পরও আপনি কোনো কারণে যেতে পারছেন না। বা আপনার পরিবর্তে আপনার পরিবারেরই অন্য কোনো সদস্য যাবে। বা আপনি যে স্টেশন থেকে ট্রেনে উঠবেন ভেবেছিলেন, সেটা পরিবর্তন করতে চান।

হ্যাঁ, সবই এখন সম্ভব অনলাইনে। এবার, এক নজরে দেখে নিন ঠিক কি কি করলে আপনি এই সুবিধা পেয়ে যাবেন:

প্রথমেই আপনার জেনে রাখা দরকার যে, আইআরসিটিসি অনলাইন মারফত কাটা টিকিট পরিবর্তন করার সুযোগ দিচ্ছে সারাদিন মানে, ২৪ ঘণ্টা। এক্ষেত্রে প্রথমেই আপনাকে যেতে হবে আইআরসিটিসি’র ওয়েবসাইটে। সেখানে আপনার আইডি ও পাসওয়ার্ড দিয়ে লগইন করে ক্লিক করুন ‘বুক টিকিট হিস্টোরি’ অপশনটিতে।

এবার আপনি এখানে যে টিকিটটি পরিবর্তন করতে চান, সেটি সিলেক্ট করে ‘চেঞ্জ বোর্ডিং পয়েন্ট’ অপশনটিতে ক্লিক করুন। এবার দেখবেন ওয়েবাসইটে নতুন একটি পাতা খুলবে। সেখানেই স্টেশনের নাম পরিবর্তন করে সেভ করে দিলেই আপনার কাজ শেষ। তবে মনে রাখবেন, এটি শুধুমাত্র অনলাইন মারফৎ কাটা টিকিটের ক্ষেত্রেই সম্ভব হবে।

ঠিক একই ভাবে, অনলাইনে কাটা টিকিটে আপনার বদলে অন্য কারও নামও পরিবর্তন করা যাচ্ছে। তবে এটি অবশ্য শুধুমাত্র কনফার্ম টিকিটের ক্ষেত্রেই সম্ভব। তবে, এ ক্ষেত্রে ট্রেন ছাড়ার কমপক্ষে ২৪ ঘণ্টা আগে যে কোনো রেলওয়ে রিজার্ভেশন কাউন্টারের যেতে হবে।

আর এটিও জেনে রাখা দরকার যে, টিকিটে নাম পরিবর্তন করা যাবে শুধুমাত্র আপনার পরিবারের মধ্যেই। বাবা, মা, ভাই, বোন, ছেলে, মেয়ে, স্বামী, স্ত্রীর মধ্যেই এই নাম বদল সম্ভব।

এই নাম পরিবর্তনের কাজটি অনলাইনে সম্ভব নয়। কারণ, অনলাইনে কাটা টিকিটের প্রিন্ট আউট ও নতুন যার নাম দেওয়া হবে তার আইডেনটিটি প্রুফ এবং সম্পর্কের প্রমাণপত্রও জমা দিতে হবে।

এই একই সুবিধা পাবে সরকারি চাকরিজীবীদের ক্ষেত্রেও। তবে, এ জন্য নির্দিষ্ট দফতর থেকে ট্রেন ছাড়ার ২৪ ঘণ্টা আগে অনুরোধ জানিয়ে চিঠি পাঠাতে হবে রেলে।

প্রতিবেদনটি ভালো লাগলে শেয়ার করুন আপনার বন্ধুদের সাথে। ধন্যবাদ।।
সূত্র

বিজ্ঞাপন
Sanjib:
বিজ্ঞাপন
বিজ্ঞাপন