কখনো ভেবেছেন কলমের ঢাকনাতে ছিদ্র থাকে কেন?

বিজ্ঞাপন

ইংরেজি পেন (penna) শব্দ এসেছে লাতিন শব্দ পেন্না (pen ) থেকে , যার মানে হল পাখির পালক । এক কালে পালকের কলম ব্যবহার হত, আমাদের বাংলাদেশ তথা ভারতবর্ষে অবশ্য খাগের কলম ব্যবহার হত ।কলমের আবিষ্কার : আদিম অবস্থায় মানুষ যখন গুহায় ভিতরে বাস করত তখন গুহার ভিতরের দেওয়ালে কোন তীক্ষ জিনিস দিয়ে ছবি আকঁত বা হিজিবিজি আকঁত যাকে ।

আবার অনেক সময় কোন পাতা বা শিকারের রস বা রক্ত দিয়ে আকিবুকি কাটত । তার অনেক পরে যখন সভ্যতার একটু একটু উন্মেষ ঘটল তখন কাদামাটির পাটায় বা নরম পাথরে লিখা শুরু করে ,এদের মাঝে চীনে উটের লোম দিয়ে তৈরি তুলির ব্যাবহার লক্ষ করা যায় ।

বলপয়েন্ট কলমের ক্যাপ কামড়ানোর অভ্যাস আমাদের অনেকেরই ছিল, হয়তো এখনো আছে! প্রিয় বন্ধু কিংবা আদরের ছোট ভাইবোনের এই অভ্যাস দেখতে দেখতে আমরা অনেকেই অভ্যস্ত। একইভাবে হয়তো অভ্যস্ত কলমের ক্যাপের ছোট্ট ছিদ্রটি দেখেও। তাই হয়তো আর এই ছোট্ট ছিদ্রটি নিয়ে মনে তেমন প্রশ্ন জাগেনি।
কিন্তু একটু ভেবে দেখুন তো কলমের ক্যাপের মাথায় ছোট ছিদ্র দেওয়া?
ছিদ্রটি কি এই জন্য যেন মুখে নিয়ে কামড়ানোর ফলে ক্যাপের ভিতরে যাওয়া থুতু বের হয়ে আসতে পারে? নাকি কোম্পানি কিছু টাকা সাশ্রয় করে? কোনোটিই না! আসলে এই ছিদ্রটির গুরুত্ব আরো অনেক বেশি এবং তাৎপর্যপূর্ণ যা আপনাকে অবাক করবে যদি না জেনে থাকেন।

দুর্ঘটনাবশত অনেকেই কলমের ক্যাপ গিলে ফেলার কারনে এই ছিদ্রটি দেওয়া! অসাবধানতায় কলমের ক্যাপ গিলে ফেললে ক্যাপটির ছোট ছিদ্র দিয়ে বাতাস প্রবাহ অব্যাহত থাকবে, বাতাস প্রবাহ অব্যাহত থাকায় হঠাৎ শ্বাসরোধ হওয়া থেকে রক্ষা পাওয়া যায়। বিশেষ করে ছোট বাচ্চারা কিছু পেলেই তা মুখে দিয়ে ফেলে, বাচ্চাদের নিরাপত্তার জন্য ছিদ্রটি অনেক গুরুত্বপূর্ণ।

ব্যাপারটি হালকা করে নেওয়ার কিছু নেই, দুর্ঘটনাবশত কলমের ক্যাপ গিলে ফেলায় শ্বাসরোধ হয়ে প্রতিবছর অনেক লোক মারা যায়। শুধুমাত্র যুক্তরাষ্ট্রেই প্রতি বছর প্রায় একশ লোকের মৃত্যু হয় এই বলপয়েন্ট ক্যাপ গিলে শ্বাসরোধ হয়ে!অবাক হয়ে আনমনে এখন আপনি যদি কলমের ক্যাপ মুখে নিয়ে কামড়ানো শুরু করে থাকেন, তাহলে আপনাকেই বলছি এই বদঅভ্যাস ত্যাগ করুন!

বিজ্ঞাপন
Raj:
বিজ্ঞাপন
বিজ্ঞাপন