সংবাদ

স্বামীকে খাটের সাথে বেঁধে আগুনে পুড়িয়ে খুন! প্রেমিক-সহ গ্রেফতার স্ত্রী

পরকিয়ায় মত্ত স্ত্রীর বিরুদ্ধে প্রেমিকের সঙ্গে ষড়যন্ত্র করে স্বামী’কে পুড়িয়ে মারার অভিযোগ! মৃতের নাম ৩৬ বছর বয়সী লক্ষ্মী প্রামাণিক। হুগলি’র আরামবাগের এই ঘটনায় লক্ষ্মী প্রামাণিকের স্ত্রী ময়না প্রামাণিক সহ দু’জন’কে গ্রেপ্তার করেছে পুলিশ। এছাড়াও আটক করা হয়েছে আরও দু’জন’কে।

সেখানকার স্থানীরা জানিয়েছেন যে, কয়েক বছর আগে ডহরকুণ্ড এলাকা’র বাসিন্দা লক্ষ্মী প্রামাণিকের সঙ্গে পাশের গ্রাম গৌরবাটি’র মেয়ে ময়নার বিয়ে হয়েছিল। তাঁদের দুটি সন্তানও আছে। কিন্তু, বিয়ের আগে থেকেই নাকি ময়না’র সাথে যাদববাটি এলাকা’র ঝন্টু’র ঘনিষ্ঠ সম্পর্ক ছিল।

গ্রামবাসীদের দাবি, কয়েক দিক আগে ঝন্টু’র সঙ্গেই ময়না পালিয়ে যায়। আবার দিন কয়েক পরেই ময়না বাড়ি’তে ফিরে আসে! এর পরেই গত সোমবার সকালে ঘরের মধ্যে পুড়ে যাওয়া লক্ষ্মী প্রামাণিকের দেহ উদ্ধার হলো।

আরও পড়ুন: ‘মোটা মহিলারা স্বর্গে যেতে পারবে না’

প্রাথমিক তদন্ত দ্বারা পুলিশ জানতে পেরেছে যে, রবিবার রাতে লক্ষ্মী প্রমাণকিকে মদ খাওয়ানো হয়। তার পরে তাঁর হাত ও পা বাঁধা হয়। আর মুখে গামছা ঢুকিয়ে দেওয়া হয়। যাতে লক্ষ্মী প্রামাণিক বাঁচার জন্য চিৎকার করলেও সে আওয়াজ কোনো ভাবেই বাইরে না আসে। এর পরে তার শরীরে দাহ্যপদার্থ ছড়িয়ে আগুন ধরানো হয়।

তবে, পোড়ানোর আগে লক্ষ্মী প্রামাণিক’কে শ্বাসরোধ করে মারা হয়েছে, নাকি পুড়িয়েই মারা হয়েছে, তা ময়নাতদন্তে’র রিপোর্ট না আসলে বোঝা যাবে না বলেই জানিয়েছে পুলিশ।

আরও পড়ুন: গ্লাসভর্তি নয়, এবার অর্ধেকই পাবেন!

ময়না ও ঝন্টু’কে এই ঘটনায় আটকও করা হয়েছে। এছাড়াও জিজ্ঞাসাবাদের জন্য শীতল প্রামাণিক সহ আরও দু’জনকে আটক করা হয়েছে। জিজ্ঞাসাবাদে’র সময় ময়না ও ঝন্টুর বক্তব্যে অসঙ্গতি পাওয়ায় তাদের গ্রেপ্তার করেছে আরামবাগ পুলিশ। তবে, এ ঘটনার সময় লক্ষ্মী-ময়না’র সন্তানে’রা কোথায় ছিল, তা জানা যায়নি।

সূত্র: আনন্দবাজার
প্রতিবেদনটি ভালো লাগলে শেয়ার করুন আপনার বন্ধুদের সাথে। ধন্যবাদ।।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *