মহত্মা গান্ধীর এই মহান নাতনীকে চেনেন? তিনি হলেন একজন ইন্টারনেটের নতুন সেনসেশন

বিজ্ঞাপন
মহত্মা গান্ধী হলেন ভারতের রাষ্ট্রপিতা।ভারতকে ব্রিটিশ রূল থেকে স্বাধীন করার পেছনে তার ভূমিকা অনস্বীকার্য।তার উপদেশ ও নিঃস্বার্থ ক্রিয়াকলাপ সকল ভারতবাসীর জন্য অনুপ্রেরণার হিসাবে কাজ করে।বাপুকে এখনো স্বরণ করা হয় তার শেখানো হিংসাত্মক,শান্তি ও মনুষ্যত্বের জন্য।আমরা নিশ্চয়ই ছোটবেলা থেকে তার কষ্ট ও সংগ্রামের কথা পড়ার বইতে পড়েছি এবং জেনেছি যে তিনি কতটা মহৎ হৃদয়ের মানুষ ছিলেন।
কিন্তু তার সম্বন্ধে এমন কিছু অজানা তথ্য আছে যা আমাদের হয়তো এখনো জানিনা।মহত্মা গান্ধীর পরিবার বর্তমানে বিদেশে থাকে,এই সম্বন্ধে হয়তো আমরা খুব কমই জানি।গান্ধীজির ১৫৪টি বংশধরেরা বর্তমানে ৬টি আলাদা আলাদা দেশে বসবাস করছেন।তার ছেলে হরিলালের ছেলে কান্তিলাল তাদের মধ্যে একজন।

সম্প্রতি তার মহান নাতনীর আকর্ষিত ছবিগুলি ইন্টানেটে রীতিমতো তোলপাড় লাগিয়ে দিয়েছে।বেশীরভাগ ভারতবাসীই তার ছবিগুলো দেখে তার প্রতি পাগল হয়ে গেছে।এই নতুন ইন্টারনেটের সেনসেশন হলেন মহত্মা গান্ধীর মহান নাতনী এবং ছেলে কান্তীলাল গান্ধীর নাতনী মেধা গান্ধী।স্বাধীনতার পর কান্তীলাল ও পরিবার আমেরিকা চলে যায়।

মেধা গান্ধী শুধু মহত্মা গান্ধীর মহান নাতনী হওয়ার জন্যই শুধু পরিচিত নন বরং তার আকর্ষক জীবনধারার জন্যও সে বিখ্যাত।তার ইনস্টাগ্রাম অ্যাকাউন্টে এখনো পর্যন্ত ১০০টিরও বেশি ছবি আপলোড হয়ে গেছে এবং তার বর্তমান ফলোয়ারের সংখ্যা ৫৬.৪ হাজার।

মেধা তার কন্ঠ প্রতিভার জন্যও বিখ্যাত এবং সে একজন কমেডি রাইটার এবং একজন প্যারডি প্রযোজকও।মেধার প্রযোজিত শো “The Dave & Jimmy Show” ওহিহো সবথেকে বিখ্যাত শো গুলোর মধ্যে একটি।সম্প্রতি সে আরও একটি নতুন শো’র প্রযোজনা করছেন যার নাম “Matty in the Morning Show”।একজন প্রাণবন্ত যাত্রী,ফটোগ্রাফার ছাড়াও মেধা একজন পশুপ্রেমীও বটে।

নীচে মেধার আরও কয়েকটি গা গরম করে দেওয়া ছবি দেওয়া হলো।

সে তার সর্বশ্রেষ্ঠ জীবন কাটাচ্ছে।

মেধা পলিটিক্স থেকে থেকে দশহাত দূরে থাকে এবং সে ক্রিয়েটিভ ফিল্ডে নিজের নাম অর্জন করতে চায়।তার সমস্ত সোশ্যাল মিডিয়ার Bio তেই লেখা আছে যে,তার সোশ্যাল মিডিয়া অ্যাকাউন্টই শুধুমাত্র বিদ্রুপের জন্য খোলা।

বিজ্ঞাপন
admin:
বিজ্ঞাপন
বিজ্ঞাপন